হজ্ব

ইসলামে হজ্জের গুরুত্ব ও ফজিলত বিস্তারিত

সাধারনত হজ্জ হচ্ছে আমাদের ইসলাম ধর্মের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ এবং গুরুত্বপূর্ণ একটি স্তম্ভ।হজ্জ শব্দের আভিধানিক অর্থ হচ্ছে মূলত সংকল্প করা বা ইচ্ছা করাকে বোঝানো হয়ে থাকে। ইসলামে হজ্জের গুরুত্ব ও ফজিলত অপরিসীম।

ইসলামী শরীয়তে হজ্জ ফরয করা হয়েছে মুসলমানদের জন্য। মুসলমানদের জন্য হজ্জ করার গুরুত্ব অপরিসীম। আমি আজকে এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আমি আপনাদেরকে হজ্জের গুরুত্ব এবং ফজিলত সম্পর্কে বলবো।তাহলে চলুন প্রথমে জেনে নেওয়া যাক হজ্জ কিঃ

হজ্জ কি?

সাধারণত আল্লাহর নির্দেশ মেনে তার সন্তুষ্টির জন্য সৌদি আরবের নির্দিষ্ট কিছু স্থানে নির্দিষ্ট সময়ে সফর করা এবং ইসলামী শরীয়ত অনুযায়ী নির্দিষ্ট কিছু কর্মকাণ্ড সম্পাদন করার নামই হলো হজ্জ।

হজ্জ সম্পন্ন করতে জিলহজ মাসের ৮ থেকে ১৩ তারিখের মধ্যে আরবের মক্কা, মিনা, আরাফাত মুজদালিফায় নির্দিষ্ট কিছু কর্মকান্ড সম্পাদন করতে হয়। হজ্জ সম্পাদন এর অন্যতম একটি উদ্দেশ্য হল সকল মুসলমানদের আরাফাতের ময়দানে অবস্থান করা। আমাদের মহানবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু সালাম ১০ম হিজরীতে তিনি একবার তার সব পরিবার নিয়ে হজ পালন করেন। আর তারই পরিপ্রেক্ষিতে দশম হিজরীতে হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু সালামের মাধ্যমে হজকে ফরজ করা হয়।

ইসলামে হজ্জের গুরুত্ব ও ফজিলত :

ইসলামে হজ্জের গুরুত্ব ও ফজিলত। কেননা হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু সালামের দ্বারা হজ্জ কে আমাদের মুসলমান সম্প্রদায়ের জন্য ফরজ করা হয়েছে।

এক হাদীসে বর্ণিত ভাষ্য অনুযায়ী, উত্তম আমল কি এই মর্মে হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু সাল্লাম আমাদের প্রিয় রাসুল কে জিজ্ঞেস করা হলো। উত্তরে তিনি সর্বপ্রথম বললেন আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের প্রতি ঈমান। তারপরে বললেন অবশ্যই আল্লাহর পথে জিহাদ। তারপরে তিনি যে কথাটা বললেন সেটি হচ্ছে মাবরুর হজ্জ।

তাহলে অবশ্যই বুঝতে পেরেছেন যে মুসলমানদের জন্য ইসলামে হজ্জের গুরুত্ব ও ফজিলত কতটা।মুসলমানদের জন্য ভাজ্য হচ্ছে ফরজ ইবাদত।

আবু হুরাইরা রাদিআল্লাহু তা’য়ালা থেকে বর্ণিত,

হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, যে ব্যক্তি শুধুমাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য হজ্জ পালন করল, এবং নিজেকে গর্হিত পাপ এবং তা ছাড়া সকল ধরনের পাপ কাজ থেকে বিরত রাখল তাহলে সে আজ থেকে ঠিক তেমনই নিষ্পাপ এবং নিষ্কলঙ্ক হয়ে ফিরে আসবে যেমনটা সে জন্মের পর অনেকটা ছিল।

আমাদের সর্বশেষ নবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু সালামের ভাষ্যমতে, যদি কোন ব্যক্তি জিহাদ এবং হজ্জে থাকাকালীন তার মৃত্যু হয়ে থাকে তাহলে আমাদের মহান আল্লাহতায়ালা তাঁর উত্তম প্রতিদান দিবেন। মানবজাতিকে হজ্জের কথা ঘোষণা করে দাও তারা পায়ে হেঁটে এবং শীর্ণ উঠের পিঠে করে তোমার কাছে আসবে, তারা দূর-দূরান্ত থেকে অনেক পথ অতিক্রম করে আসবে হজ করার উদ্দেশ্যে। সূরা আল -হজ্জ

ইসলামে হজ্জের গুরুত্ব ফজিলত। হজ্জ সম্পাদনের অন্যতম একটি অংশ হলো জিলহজ্বের মাসে আরাফাতের ময়দানে অবস্থান করা। আর এই আরাফাতের ময়দান সাধারণত আমাদের হাশরের ময়দানের কথা মনে করে দেয় যেখানে মৃত্যুর পর সকলে আবার একত্রে হবে।

নারীদের জন্য হজ্জকে জিহাদের সমতুল্য হিসাবে ধরা হয়ে থাকে।আর এটি হচ্ছে জান্নাত লাভের অবলম্বন স্বরূপ। ইসলাম ধর্মে হজ্জের ফজিলত ও গুরুত্ব অনেক। হজ্জে যাওয়ার সময় কাফনের কাপড় পড়ে পরিবারকে ছেড়ে যাওয়া কালি এখানে কবরের কথা মনে করিয়ে দেওয়া হয়ে থাকে। আর হজ্জ চলাকালীন আল্লাহর সকল ধরনের আদেশ-নিষেধ মেনে চলা কে বোঝানো হয়েছে যে মুসলমানদের জীবনধারা কোনভাবেই লাগামহীন নয়। মুমিনদের জীবন অবশ্যই আল্লাহর রশিতে বাধা।

ইসলামে হজ্জের গুরুত্ব ও ফজিলত। হজ্জ মুসলিম উম্মতদেরকে আল্লাহর স্বার্থে ঐক্যবদ্ধ ও শক্তিশালী মহা জাতিতে পরিণত হতে উদ্বুদ্ধ করে থাকে।তাছাড়া হজ্জ করার মাধ্যমে মুমিনদের মধ্যে আল্লাহর বন্দেগী করার বাসনা জাগে।

পরিশেষে, ইসলামের পাঁচটি স্তম্ভ রয়েছে তার মধ্যে হজ্জ উল্লেখযোগ্য। আর মুসলমানদের জন্য হজ্জ ফরয করা হয়েছে। হজ্জের ফজিলত এবং গুরুত্ব মুসলমানদের জন্য অপরিসীম।তাই অবশেষে বলা যায় ইসলাম ধর্মে হজ্জের গুরুত্ব এবং ফজিলত অনস্বীকার্য।
_____________________________________
এই পোস্টটি করেছেন: Hamim Hossain ( Web Designer | Digital Marketer | Content Writer )

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button