ইসলামিক জীবন

ইসলামের আলোকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকার উপকারিতা

ইসলামের আলোকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকার উপকারিতা। পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা ঈমানের অঙ্গ। ইসলাম একজন মানুষকে কিভাবে শারীরিক পরিষ্কার- পরিচ্ছন্নতা অর্জন করতে হয় তার পদ্ধতি বলে দেয়। আমাদেরকে শারীরিকভাবে পরিষ্কার ও পবিত্র করার উত্তম পদ্ধতি হলাে অযু।

মূলত দুটি উপায়ে ওযু করা যায়:

  • সবচাইতে প্রচলিত নিয়ম বিশুদ্ধ পানি ব্যবহার করে অযু করা।
  • ভালো পানি না পাওয়া গেলে আরেকটি উপায় রয়েছে সেটি হল: বিশুদ্ধ মাটি ব্যবহার করা। এটিকে মূলত তায়াম্মুম করা বলা হয়।

আল্লাহ তাআলা কুরআনে বলেছেন: “আল্লাহ পবিত্রতা অর্জনকারীদের পছন্দ করেন। সুরা আত তাওবা, ৯:১০৮

ইসলামের আলোকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকার উপকারিতা
ইসলামের আলোকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকার উপকারিতা

ইসলামের আলোকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকার উপকারিতা:

  • পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকলে নিজের শরীর সবসময় উৎফুল্ল লাগে।
  • আল্লাহর ইবাদতে মন বসে।
  • বিভিন্ন প্রকার রোগ বালাই থেকে বেঁচে থাকা যায়।
  • যেকোনো ভালো কাজে মন বসে।
  • শরীরের ভেতর কোন প্রকার অস্বস্তি কাজ করে না।
  • মন সবসময় প্রফুল্ল থাকে।
  • দীর্ঘ সময় ধরে যে কোন কাজ করা যায়।
  • আমরা সবাই জানি পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা ঈমানের অঙ্গ।
  • পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন অবস্থায় যে কোন দোয়া করলে তা কবুল হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে।
  • আল্লাহতাআলা তার বান্দার পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকা টা পছন্দ করেন।

ইসলামের আলোকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকার উপকারিতা অনেক। সবসময় অযু অবস্থায় থাকার চেষ্টা করা উত্তম। অযু অবস্থায় থাকলে আল্লাহর ইবাদতে মন বসে, মনে মনে নিজেকে পবিত্র মনে হয় ও অপবিত্রতা থেকে নিজেকে বাঁচিয়ে রাখা যায়। স্বাস্থ্যবিজ্ঞানের দৃষ্টিতে আমরা যদি সবসময় অযু অবস্থায় থাকার চেষ্টা করি,তাহলে রােগ-জীবাণুর সংক্রমণ থেকে বেঁচে থাকতে পারব।

ইসলামের আলোকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকার উপকারিতা

ইসলাম ধর্মে কিছু ইবাদাত যেমন: সালাত, তাওয়াফ অযু অবস্থায় করা ফরয। নিয়মিত গোসল করা হচ্ছে পবিত্রতা অর্জনের আরেকটি মাধ্যম, এর দ্বারা সম্পূর্ণ দেহের পরিচ্ছন্নতা ও পবিত্রতা অর্জন করা যায়। শারীরিক পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা ও পবিত্রতার আরেকটি অংশ হচ্ছে পরিধেয় কাপড়ের পবিত্রতা। গােসল অথবা অযুর জন্য ব্যবহৃত পানিও বিশুদ্ধ ও পবিত্র হতে হবে।

আল্লাহ সুবহানাহু তা’আলা কুরআনে বলেছেন: “আল্লাহ অবশ্যই সেসব লােকদের ভালােবাসেন যারা আল্লাহর দিকেই ফিরে আসে (পাপ থেকে অনুশােচনা করে) এবং যারা পাক পবিত্রতা অবলম্বন করে।” সুরা আল বাকারা, ২:২২২

ইসলামের আলোকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকার উপকারিতা

আশা করি পবিত্র থাকার বিষয়টা প্রায় সবাই বোঝেন। আমাদের সবার উচিত সঠিক নিয়মে সর্বদা পাক-পবিত্র থাকা, আল্লাহ তাআলার ইবাদত করা, আল্লাহ তাআলার দেখানো পথে চলা। এই নিয়মগুলো মেনে চললে আমরা সব সময় শান্তিতে থাকতে পারবো , জীবন হবে সুখের।

মহান আল্লাহতালার কাছে আমাদের সকলের একটাই চাওয়া, আমরা যেন আমাদের ঈমান এবং আমল কে ঠিক রাখতে পারি। যিনি আমাদেরকে সৃষ্টি করেছেন, আমরা শুধুমাত্র যেন তাঁর ইবাদত করতে পারি। মহান আল্লাহতালার কাছে যেন আমরা আমাদের মনের সকল কথা প্রকাশ করতে পারি, আমাদের সকল চাওয়া চাইতে পারি।

ভুলে গেলে চলবে না আল্লাহতালা সব কিছুই দেখেন। আমরা যদি আল্লাহতালার দেখানো পথ অনুসরণ করি, নিয়ম কারণ গুলো মেনে চলি, তাহলে অবশ্যই আমাদের জীবন সুখে এবং স্বাচ্ছন্দ্যের হবে। আমরা খুব সুন্দর ভাবে আমাদের জীবন অতিবাহিত করতে পারব। আমরা অনেক সময় ভুল পথে চলাফেরা করি, না রকম খারাপ কাজ করি, আল্লাহ এবং তাঁর নবী রাসূলের দেখানো পথ অনুসরণ করে চলি না। মিথ্যা কথা বলা সহ আরো নানা রকম অপকর্ম করি।

আমরা যদি এই সকল কাজ বাদ দিয়ে আল্লাহ তাআলা এবং তাঁর প্রেরিত রাসূলের দেখানো পথে চলি, তাহলে অবশ্যই আমাদের জীবনে শান্তি নেমে আসবে, সুখ আসবে। তাই আমরা সবাই চাইবো কোরআন ও হাদিসের আলোকে এবং আল্লাহ তাআলা এবং তাঁর নবী রাসূলদের দেখানো পথ অনুযায়ী আমাদের জীবন অতিবাহিত করতে।

আমরা সব সময় ভুলে যাই ইহকালের জীবনটা ছোট্ট একটা জীবন, সাময়িক একটা জীবন। এই জীবনটা আর কোনো নির্দিষ্ট সময় নেই। কিন্তু আমরা যদি একটু গভীরভাবে চিন্তা করি তাহলে দেখতে পারবো, মৃত্যুর পরের জীবন টা অসীম। সেই জীবনের কোনো শেষ নেই। আমাদের সকল ভাল এবং মন্দ কাজের হিসাব মৃত্যুর পর দিতে হবে।

আমরা যদি ইহকালে ভালো কাজ করি, আল্লাহ এবং তাঁর প্রেরিত রাসূলের দেখানো পথে চলি, কোরআন ও হাদিসের আলোকে আমাদের জীবনটা গড়ে তুলি, ইসলামের সাথে জীবন অতিবাহিত করে চলি, তবে আমরা ইহকালের জীবনে একদিকে যেমন সুখ পাব অন্যদিকে পরকালেও আমরা তার সঠিক মর্যাদা পাব।

আল্লাহতালা এক এবং অদ্বিতীয়, তাঁর কোন শরীক নেই। তাই আমরা সব সময় মহান আল্লাহ তাআলার ইবাদত করব এবং তার দেখানো পথে চলবো। আল্লাহ যেন আমাদের সবাইকে ভাল রাখুক। আমিন।

_____________________________________
এই পোস্টটি করেছেন: Hamim Hossain ( Web Designer | Digital Marketer | Content Writer )

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button